প্রোগ্রামিং সি এ ইনপুট / আউটপুট

প্রোগ্রামিং সি ল্যাঙ্গুয়েজ এ ইনপুট এবং আউটপুট এর জন্য ANSI স্ট্যান্ডার্ড দ্বারা অনেক লাইব্রেরি ফাংশন  নিদিষ্ট করে দেওয়া আছে। প্রোগ্রামিং সি তে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় ফাংশন  printf() এবং ফাংশন scanf() যথাক্রমে ইনপুট নেওয়ার জন্য এবং আউটপুট দেওয়ার জন্য।

উদাহরন স্বরূপ:

ইনপুটঃ
#include <stdio.h> //এটা printf() ফাংশন রান করার জন্য প্রয়োজন.
int main()
{
printf(“C Programming”); //quotation এর মধ্যের লেখা টুকু ডিসপ্লে তে দেখাবে।//
return 0;
}

আউটপুটঃ
C Programming

প্রোগ্রাম যেভাবে কাজ করেঃ


১। প্রত্যেকটি প্রোগ্রাম শুরু হয় main() ফাংশন থেকে।
২। printf() হল একটি লাইব্রেরি ফাংশন যা ডিসপ্লে আউটপুট এর জন্য ব্যবহার করা হয় এবং এটা তখন ই কাজ করবে যখন প্রোগ্রাম এর শুরুতে #include<stdio.h> দেওয়া থাকবে।

৩। এখানে stdio.h একটি হেডার ফাইল, এবং #include হল কমান্ড যেটা,যখন প্রয়োজন হয় তখন হেডার ফাইল থেকে code নিয়ে সেখানে দেয়। যখন কম্পাইলার printf()ফাংশন দেখে এবং যদি stdio.h হেডার ফাইল খুঁজে না পায় তখন কম্পাইলার এরর দেখায়।

৪। return 0; কোড দিয়ে প্রোগ্রাম এর শেষ বোঝানো হয়। এই অংশ টুকু না লেখলেও কোন সমস্যা নেই তবে প্রোগ্রামিং এ return 0; ব্যবহার করা ভাল অভ্যাস।

 

প্রোগ্রামিং সি তে ইন্টিজার এর ইনপুট এবং আউটপুটঃ

#include<stdio.h>
int main()
{
int c=5;
printf(“Number=%d”,c);
return 0;
}

আউটপুটঃ Number=5

এখানে ইন্টিজার টাইপ ভেরিয়েবল c প্রিন্ট করার জন্য “%d” স্ট্রিং ব্যবহার করা হয়। যদি স্টিং টি c এর সাথে ম্যাচ করে তখন প্রোগামটি c ভেরিয়েবল এর ভ্যালু প্রিন্ট করে।
আর একটি প্রোগ্রাম দেখা যাক
#include<stdio.h>
int main()
{
int c;
printf(“Enter a number\n”);
scanf(“%d”,&c);
printf(“Number=%d”,c);
return 0;
}
আউটপুটঃ
Enter a number
4
Number=4
scanf() ফাংশন টি ব্যবহার করা হয় ইউজার থেকে ইনপুট নেওয়ার জন্য এবং এটা ইউজার থেকে ইনপুট চায় এবং সেই ইনপুট আর মান টা c ভ্যারিয়েবল এর মধ্যে রাখে। এখানে &c দিয়ে c এর এড্রেস নির্দেশ করে এবং c এর মান ওই এড্রেস এ সেভ হয়।

 

প্রোগ্রামিং সি তে ফ্লোটস এর ইনপুট এবং আউটপুটঃ

#include <stdio.h>
int main(){
float a;
printf(“Enter value: “);
scanf(“%f”,&a);
printf(“Value=%f”,a);  //%f ফ্লোটস এর জন্য ব্যবহার করা হয়, আর int এর জন্য %d ব্যবহার করা হয়। //
return 0;
}

আউটপুট:
Enter value: 23.45
Value=23.450000

“%f” ব্যবহার করা হয় ফ্লোটস টাইপ ভ্যারিয়েবল ইনপুট এর জন্য এবং ফ্লোটিং টাইপ মান আউটপুট এর জন্য।
প্রোগ্রামিং সি তে ক্যারেক্টারস এবং ASCII কোড এর ইনপুট এবং আউটপুটঃ

#include <stdio.h>
int main(){
char var1;
printf(“Enter character: “);
scanf(“%c”,&var1);
printf(“You entered %c.”,var1);
return 0;
}

আউটপুট:
Enter character: g
You entered g.
ক্যারেক্টারস এর ইনপুট এবং আউটপুট এর জন্য “%C” ব্যাবহার করা হয়।

ASCII কোড:
যখন উপর এর প্রোগ্রাম এ ক্যারেক্টার টাইপ করা হয় তখন ক্যারেক্টার গুলো নিজে নিজে ASCII এর নিউমেরিক ভেলু গুলা স্টোর করতে পারে না, যে ভেলু গুলা স্টোর হয় এবং আমরা যখন “%c” দিয়ে ওই ভেলু ডিসপ্লে করি তখন ওই ক্যারেক্টার ডিসপ্লে হয়।
#include <stdio.h>
int main(){
char var1;
printf(“Enter character: “);
scanf(“%c”,&var1);
printf(“You entered %c.\n”,var1);
/* \n দ্বারা পরের লাইন এ যাওয়া বোঝায় (মানে enter এর কাজ করে ). */
printf(“ASCII value of %d”,var1);
return 0;
}

আউটপুট:

Enter character:
g
103

এখানে যখন g ইন্টার করা হয়েছে তখন g এর পরিবর্তে ASCII ভেলু 103 স্টোর হয়েছে।

শুধু ASCII কোড জানলেই ক্যারেক্টার ডিসপ্লে করা যায়. নিচে এটা দেখান হল।

#include <stdio.h>
int main(){
int var1=69;
printf(“Character of ASCII value 69: %c”,var1);
return 0;
}

আউটপুটঃ
Character of ASCII value 69: E

A এর ASCII মান ৬৫,

B এর ৬৬,

একই ভাবে যথাক্রমে Z এর মান ৯০

একই ভাবে a এর ASCII মান ৯৭

b এর ৯৮ এবং যথাক্রমে z এর ১২২.

 

ইন্টিজার এবং ফ্লোটস এর ইনপুট এবং আউটপুট এর আরো কিছু তথ্য:

প্রোগ্রামিং সি তে ইন্টিজার এবং ফ্লোটিং পয়েন্টস আরও অনেক ভাবে ডিসপ্লে করা যায়। যেমন ,

#include<stdio.h>
int main(){
printf(“Case 1:%6d\n”,9876);
/* Prints the number right justified within 6 columns */
printf(“Case 2:%3d\n”,9876);
/* Prints the number to be right justified to 3 columns but, there are 4 digits so number is not right justified */
printf(“Case 3:%.2f\n”,987.6543);
/* Prints the number rounded to two decimal places */
printf(“Case 4:%.f\n”,987.6543);
/* Prints the number rounded to 0 decimal place, i.e, rounded to integer */
printf(“Case 5:%e\n”,987.6543);
/* Prints the number in exponential notation(scientific notation) */
return 0;
}
আউটপুট:
Case 1: 9876
Case 2:9876
Case 3:987.65
Case 4:988
Case 5:9.876543e+002

ইন্টিজার এবং ফ্লোটস এর ইনপুটে বিভিন্ন ভেরিয়েশন্:
#include <stdio.h>
int main(){
int a,b;
float c,d;
printf(“Enter two intgers: “);
/*Two integers can be taken from user at once as below*/
scanf(“%d%d”,&a,&b);
printf(“Enter intger and floating point numbers: “);
/*Integer and floating point number can be taken at once from user as below*/
scanf(“%d%f”,&a,&c);
return 0;
}
একই ভাবে যে কোনো সংখ্যার ইনপুট ইউজার একসাথে দিতে পারবে।

লেখক পরিচিতিঃ

তাহমিনা আক্তার সোনিয়া

মজা পাই ঘুরা ঘুড়ি করতে, কম্পিউটার এ গেমস খেলতে। লিখতে ভাল লাগে। ডিজাইন ও প্রোগ্রামিং করতে ভালবাসি। আমার যা জানা বিষয় আছে, সবার কাছে বলতে ভালবাসি।